৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার,
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
K T V Clock
Gaighata Rape: মহিলা বিজেপি কর্মীর উপস্থিতিতে নাবালিকা ধর্ষণে তোলপাড় গাইঘাটা
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ২২-০৪-২০২২, ৪:০৯ অপরাহ্ন
Gaighata Rape: মহিলা বিজেপি কর্মীর উপস্থিতিতে নাবালিকা ধর্ষণে তোলপাড় গাইঘাটা
মহিলা বিজেপি কর্মীর উপস্থিতিতে নাবালিকা ধর্ষণ

গাইঘাটা: হাঁসখালি ধর্ষণ কাণ্ডে এক তৃণমূল নেতার ছেলের দিকে অভিযোগের আঙুল উঠেছিল। প্রথম থেকেই সেই বিষয়ে সরব হয়েছিল গেরুয়া শিবির। দলের তরফে হাঁসখালিতে ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং টিমও পাঠানো হয়। এরই মধ্যে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। মহিলা বিজেপি কর্মীর উপস্থিতিতে গাইঘাটায় গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল। এই ঘটনায় ওই বিজেপি কর্মী ও তাঁর ছেলে সহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। বৃহস্পতিবার দুপুরের এই ঘটনায় শোরগোল গাইঘাটায়।

তৃণমূলের দাবি, ধৃত মহিলা বিজেপির মহিলা মোর্চার বুথ সভাপতি। যদিও বিজেপির বক্তব্য, ওই মহিলা একজন সাধারণ বিজেপি কর্মী। শুক্রবার সকালে ওই নাবালিকার বাড়িতে যান বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার তৃণমূল সভাপতি গোপাল শেঠ। নির্যাতিতার বাবার সঙ্গে দেখা করেন তিনি। দোষীদের শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাসও দেন। গোপাল শেঠের অভিযোগ বিজেপি এইসব ঘটনা ঘটিয়ে রাজ্যে অশান্তির পরিবেশ তৈরির চেষ্টা করছে৷ আমরা তা হতে দেব না। মেয়েটির পক্ষে সরকারি আইনজীবীরা আজকে দাঁড়াবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ ওই নাবালিকার উপর নির্যাতন চালানো হয়। পুলিস ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, নতুন ক্যামেরা দেখানোর নাম করে নাবালিকাকে ডেকে নিয়ে যান প্রতিবেশী এক যুবক। মেয়েটির মুখে কাপড় গুঁজে দিয়ে তাকে ধর্ষণ করা হয়। এই ঘটনায় সাহায্য করার অভিযোগ উঠেছে ওই মহিলা বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে। অভিযোগ, ধর্ষণের সময় ছেলেকে নিয়ে বাড়ির বাইরে পাহারা দিচ্ছিলেন তিনি।

গাইঘাটা পশ্চিম ব্লকের তৃণমূল সভাপতি বিপ্লব দাস বলেন, 'ওই মহিলা উত্তরপ্রদেশের সংস্কৃতি এখানে আনতে চাইছেন। ঘটনাটি খুব দুর্ভাগ্যজনক। আমরা এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাব।' বিজেপির গাইঘাটা বিধানসভার বিজেপির কো-কনভেনার রাজকুমার মিত্র বলেন, 'ওই মহিলা বিজেপি কর্মী হিসেবে আগে মিটিং, মিছিল করতেন। গত ৬ মাসে তাঁকে কোনও মিটিং, মিছিলে দেখা যায়নি। পুলিস ঘটনার তদন্ত করছে৷ দোষ প্রমাণিত হলে পুলিস ব্যবস্থা নেবে৷'

বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে সাংগঠনিক বৈঠক শুরুর আগে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, বিজেপি এই ধরনের কাজ সমর্থন করে না। পুলিশের উচিত সে যত বড় নেতাই হোক না কেন তথ্য প্রমাণ জোগাড় করে তাঁকে শাস্তি দেওয়া। বিজেপি তাঁকে বাঁচাতে যাবে না। কিন্তু যদি বিজেপি করে বলে তাঁকে ফাঁসানো হচ্ছে বলে মনে হয়, তাহলে বিজেপি তাঁর পাশে দাঁড়াবে।

Tags : Gaighata Rape

শেয়ার করুন


© R.P. Techvision India Pvt Ltd, All rights reserved.