১৩ অগাস্ট ২০২২, শনিবার,
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
K T V Clock
এখনও হাতে সময় রয়েছে, পারদ নামার সবে শুরু তবে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কমছে আর্দ্রতা, তাই এই সময়ের মধ্যেই চুল ভাল রাখতে চুলের পরিচর্যায় আগাম এই বিষয়গুলো মেনে চলুন।
Pre-winter hair care: আবহাওয়ার পরিবর্তনে যেন ম্লান না হয় চুলের সৌন্দর্য্য
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
  • আপডেট সময় : নভেম্বর
Pre-winter hair care: আবহাওয়ার পরিবর্তনে যেন ম্লান না হয় চুলের সৌন্দর্য্য
চুল ভাল রাখতে ভিটমিন ও প্রাকৃতিক খনিজ পদার্থে ভরা পুষ্টিকর খাবার ভীষণ জরুরী

নিয়ম করে সূর্যের দেখা মিলছে ঠিকই তবে রোদের দাপট কিন্তু এখন অনেকটাই কম। দিনের বেলায় রোদ চশমা কিংবা ছাতা ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরোলে ঘেমে নেয়ে একেবারে স্নান করার মত অবস্থা আর হচ্ছে না। আবহাওয়ার এই বদল জানান দিচ্ছে আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা, শীত এল বলে। আর এই শীতকাল আপনার যতই প্রিয় হোক, শীতের ঠান্ডা ও শুষ্ক হাওয়ায় ত্বক ও চুলের পক্ষে কিন্তু একদমই সুখকর নয়। এখন হাতে সময় রয়েছে পারদ নামার সঙ্গে সঙ্গে কমছে আর্দ্রতা তাই এই সময়ের মধ্যেই চুল ভাল রাখতে প্রয়োজন চুলের বিশেষ যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন।

ভিটমিন ও প্রাকৃতিক খনিজ পদার্থে ভরা পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার পাশাপাশি চুল ভাল রাখতে এই নিয়মগুলো মানলে উপকার পাবেন। যেমন-

সালফেট-ফ্রি শ্যাম্পু ব্যবহার করুন

আবহাওয়া যত শুষ্ক হবে তত শুষ্ক হবে চুল। তাই এই সময় চুলের জন্য এমন সামগ্রীর প্রয়োজন যা চুলের আদ্রতা বজায় রাখে। এক্ষেত্রে অর্গানিক বা সালফেট মুক্ত শ্যাম্পু চুলের জন্য খুবই ভাল। সালফেট ময়লা ও তেল পরিষ্কার করে ঠিকই কিন্তু এই শ্যাম্পুর বেশি ব্যবহার মাথার ত্বকে থাকা পুষ্টিরকর এবং প্রয়োজনীয় তেলও বেড়িয়ে যায় এর ফলে মাথার ত্বক ও চুল শুষ্ক হয়ে যায়।

ডিপ কন্ডিশনার ব্যবহার করুন

গ্রীষ্মকাল ও বর্ষাকালে লাইট ওয়েট কন্ডিশনার খুব ভাল কাজ করে। কিন্তু শীতকালে প্রয়োজন ডিপ কন্ডিশনিংয়ের তার ওপর আপনার মাথার ত্বক যদি শুষ্ক হয় তাহলে তো ডিপ কন্ডিশনার ছাড়া উপায় নেই। তাই এমন কন্ডিশনার বাছুন যাতে জোজোবা বা নারকেল তেল রয়েছে। এর ফলে মাথার ত্বকের আর্দ্রতাও বজায় থাকবে আবার ফ্রিজি(frizzy hairs) চুল নিয়ে সমস্যা হবে না।

মাথায় তেল মালিশ করুন

মাথার ত্বক যাতে শুষ্ক না হয়, চুল দুমখো না হয়ে পড়ে এবং হেয়ার ফোলিকল যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় তার জন্য প্রয়োজন তেল মালিশ।

হেয়ার স্টাইলিংয়ের সরঞ্জাম যত কম ব্যবহার করা যায় তত ভাল

শীতকালে চুল এমনিতেঅ নিজের আর্দ্রতা হারিয়ে শুষ্ক ও ভঙ্গুর প্রবণ হয়ে যায়। এই অবস্থায় হেয়ার স্টাইলিং সরঞ্জামের ব্যবহারে যে বাড়তি তাপ চুলে দেওয়া হয় তাতে চুলের অবস্থা আরও খারাপ হতে পারে। তাই একান্তই যদি ব্যবহার করতে হয় তা হলে প্রোটেক্টিভ হেয়ার সিরাম ব্যবহার করুন। এতে ক্ষতি অনেকটাই কম হবে।

হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন

ডিম, মধু কিংবা টক দইয়ের দিয়ে তৈরি হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করতে পারবেন। এতে চুল প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও আর্দ্রতা পাবে। চুল লম্বা হবে।

গরম জল দিয়ে শ্যাম্পু করবেন না

শীতকালে স্নান করার কথা ভাবলেই যেন গায়ে কাপুনি ধরে। সেক্ষেত্রে গরম চলে স্নান করার হাতছানি এড়ানো সম্ভব নয়। কিন্তু  গরম জলে শ্যাম্পু করলে যে চুলের বিপদ। গরম জল মাথার চাঁদিতে থাকা তেল পুরোপুরি শুষে নেয় তাই ইষদুষ্ণ জলে স্নান করার চেষ্টা করুন।

হেয়ার ট্রিম করাতে হবে

শীতকালে চুল বেশি শুষ্ক হয়ে যাওয়ার ফলে দুমুখো হয়ে যায়। তাই চুল যাতে দেখতে খারাপ না লাগে এবং চুলের স্বাস্থ্য ভাল থাকে তার জন্য চুলের ডগা ছেঁটে নিন।

মাইক্রোফাইবার টাওয়েল ব্যবহার করুন


















চুলে কম ঘষা লাগা থেকে শুরু করে, বেশি জল শুষে নেওয়া ক্ষমতা সম্পন্ন এই বিশেষ তোয়ালে শীতকালের জন্য একেবারে পার্ফেক্ট। তাই শীতকালে চুল ভাল রাখতে এই মাইক্রোফাইবার তোয়ালে ব্যবহারের চেষ্টা করুন।

Tags :

শেয়ার করুন


© R.P. Techvision India Pvt Ltd, All rights reserved.