০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, বুধবার,
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
K T V Clock
মাংসাশী অথচ দন্তহীন , ব্রাজিল থেকে উদ্ধার বিরল প্রজাতির ডাইনোসরের জীবাশ্ম
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১৯-১১-২০২১, ৯:২৯ পূর্বাহ্ন
মাংসাশী অথচ দন্তহীন , ব্রাজিল থেকে উদ্ধার বিরল প্রজাতির ডাইনোসরের জীবাশ্ম

রিও ডে জেনেইরো : ৭০ মিলিয়ন বছর আগের এক বিরল প্রজাতির ডাইনোসরের জীবাশ্ম উদ্ধার হয়েছিল ব্রাজিলে। বৃহস্পতিবার এই ডাইনোসরের জীবাশ্ম সম্পর্কে নিজেদের মতামত প্রকাশ করেন গবেষকরা।

ব্রাজিলের দক্ষিণ অংশের রাজ্য পারানার একটি গ্রামীণ রাস্তার পাশ থেকে এই জীবাশ্ম উদ্ধার হয়। গবেষণায় এই ডাইনোসরের জীবাশ্ম থেকে ও এক নতুন তথ্য জানা গেছে। প্রায় ৭০ থেকে ৮০ মিলিয়ন বছর আগে পৃথিবীতে ছিল এই বিরল প্রজাতির ডাইনোসরের অস্তিত্ব। গবেষকরা জানিয়েছেন, দু পায়ে হাঁটাচলা করত এই ডাইনোসরগুলি। প্রায় ৩ ফুট লম্বা ও আড়াই ফুট চওড়া এই ডাইনোসরদের দাঁত ছিল না। এটি থেরোপড প্রজাতির ডাইনোসর বলে মনে হলেও গবেষণার পর জানা গেছে, নতুন আবিষ্কৃত এই ডাইনোসরটির নাম রাখা হয়েছে বার্থাসূরা লিও পলডিনায়। এই ডাইনোসরদের দাঁত নেই। কিন্তু পাখির মত ঠোঁট ছিল। এরা মাংসাশী ছিল বলে মনে করছেন গবেষকের।



ব্রাজিলের জাতীয় জাদুঘর থেকে জানানো হয়েছে যে, এটি সম্পূর্ণ অন্য ধরণের একটি জীবাশ্ম। জাদুঘরের তরফে নেচার জার্নালে তাদের অনুসন্ধানের তথ্যগুলি প্রকাশ করা হয়েছে। গবেষণার অন্যতম লেখক জিও ভেন আলভেস সুজা বলেন, দন্তহীন এই ডাইনোসরটির খাদ্যাভাস কি ছিল সেই নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে এখনও সন্দেহ রয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, এই প্রজাতির ডাইনোসররা দন্তহীন এবং মাংসাশী ছিল, তাই মনে করা হচ্ছে, ঠোঁট দিয়েই ছিঁড়ে মাংস খেত তারা। গবেষকরা আরও জানিয়েছেন যে, এমন পরিবেশে এই ডাইনোসর থাকত, যেখানে তারা সর্বভুকও হয়ে থাকতে পারে। গবেষকরা এই নতুন প্রজাতিটি নামকরণ করেছেন শ্রদ্ধেয় ব্রাজিলিয়ান বিজ্ঞানী বার্থা লুটজের নামে।

Tags :

শেয়ার করুন


© R.P. Techvision India Pvt Ltd, All rights reserved.