০৪ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার,
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
K T V Clock
League One: মেসি বিশ্রামেই, পিএসজি পিছিয়ে পড়েও হার রুখলো
  • আপডেট সময় : ১০-০১-২০২২, ৩:১১ অপরাহ্ন
League One: মেসি বিশ্রামেই, পিএসজি পিছিয়ে পড়েও হার রুখলো
ম্যাচ ড্র, পয়েন্ট নষ্ট পিএসজির

করোনা ভাইরাস থেকে সেরে উঠলেও মাঠে নামেননি লিওনেল মেসি। চোট সারিয়ে পুরো ফিট নন, নেমার। কিন্তু নিয়মিত খেলে যাওয়া কিলিয়ান এমবাপে ছিলেন। কিন্তু রবিবার পিএসজি অ্যাওয়ে ম্যাচে অলিম্পিক লিওঁয়ের বিপক্ষে পুরো পয়েন্ট নিয়ে ফিরতে পারেনি। ম্যাচ ১-১ ড্র রেখে একটি পয়েন্ট জুটলো এমবাপেদের।  এই ম্যাচে প্রথমে গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়েছিল। 

এন্তার পয়েন্ট নষ্ট করেই চলেছে মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল। এই খেতাবি লড়াইয়ে শেষ ৫ টি ম্যাচের ৪ টিতে পুরো পয়েন্ট ঘরে তুলতে পারে নি পিএসজি। এই একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে,  চলতি মরশুমে লিওঁর বিপক্ষে প্রথম সাক্ষাৎকারে ঘরের মাঠে ২-১ গোলের ব্যবধানে জিতেছিল পিএসজি।

https://twitter.com/PatPSGdepuis82/status/1480458985652338688?t=eDSy6UeKaJp3Hc8Pkl4gAA&s=19

অ্যাওয়ে ম্যাচে পয়েন্ট নষ্ট: 

ম্যাচ শুরুর মাত্র ৭ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে পাওয়া  থ্রু পাস দখলে নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে বল জালে পাঠিয়ে লিওঁকে এগিয়ে  দেন লুকাস পাকুয়েতা (১-০)।  এরপর ম্যাচের ২১ মিনিটে গোল পেতে পারতো পিএসজি। তবে লেওনার্দো পারেদেসের শট শরীর ছুঁড়ে রুখে দেন লিওঁর গোলরক্ষক অ্যান্তোনিও লোপেজ।

এই সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার পর কেটে যায় কিছু সময়।  মিনিট তিনেক পর বক্সের বাইরে থেকে মার্কিনিয়োসের শট একজনের পায়ে লেগে উঁচু হয়ে গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে গোলে ঢুকে যাচ্ছিল।  কিন্তু কোনও মতে এক হাত দিয়ে বল ক্রসবারের ওপর দিয়ে পাঠান গোলকিপার লোপেজ। 

আবারও ৪২ মিনিটে গোল করার সুযোগ পায় পিএসজি। বরাত মন্দ, তাই গোল পায়নি পিএসজি। কর্নার থেকে ভেসে আসা বল লিওঁর রক্ষণ বিপদুমুক্ত করতে ব্যর্থ হলে ফাঁকায় তা পেয়ে যান এমবাপে। তার চকিত শট দূরের পোস্টে আছড়ে পড়ে। 

প্রথমার্ধে o-১ গোলে পিছিয়ে থেকে পরের অর্ধ শুরু করে পিএসজি। বিরতির পর ম্যাচে সমতা ফেরাতে মরিয়া হয়ে ওঠে প্যারিসিয়ানরা। বেশ কিছু আক্রমণে লিওঁর রক্ষণে কাঁপন ধরায় পিএসজি।  কিছুতেই রক্ষণে ফাটল ধরিয়ে গোল করতে পারছিল না পিএসজি। 

https://twitter.com/PatPSGdepuis82/status/1480458974105321472?t=IcR_9z2RjThJfUh0Hy1NjA&s=19

বরঞ্চ,  ম্যাচের ৫৯ মিনিটে  ০-২ গোলে পিছিয়ে পড়তে পারত এমবাপেরা। মুসা দেম্বেলের শট ঝাঁপিয়ে পড়ে পিএসজির গোলরক্ষক নাভাস ফিরিয়ে দেওয়ায় সে যাত্রায় রক্ষা পায় দল।

খেলার নির্ধারিত সময়ের তখনও ১৪ মিনিট বাকি। সমতা ফেরানোর গোলটি মেলে। বিপক্ষের ডি-বক্সে ডান দিকে ফাঁকায় বল পেয়ে টিলো কেহরার নিচু শট নেন। আর সেই শটে পা বাড়িয়ে তা ঠেকানোর চেষ্টা করেন গোলরক্ষক। এবার ভাগ্য সহায় ছিল পিএসজির। দলের শেষ প্রহরীর পায়ে লেগেই বল চলে যায় জালে। এতেই সমতায় ফেরে পিএসজি (১-১)। শেষদিকে কিলিয়ান এমবাপের দুর্দান্ত এক ফ্রিকিক গোলপোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। এরপর বাকি সময়ে  ম্যাচ আর জেতা হয়নি প্যারিসিয়ানদের।

শীর্ষে সেই পিএসজি: 

শেষ পাঁচ ম্যাচের চারটিতে পয়েন্ট খোয়ালেও লিগ টেবিলের শীর্ষস্থানেই রয়ে গেছে পিএসজি। ২০ ম্যাচে ১৪ টিতে জয় ও পাঁচ ড্রয়ে এমবাপেদের পয়েন্ট এখন - ৪৭। ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে আছে -  নিস। এই মরশুমে খুব খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাওয়া লিওঁ ১৯ ম্যাচে ২৫ টি পয়েন্ট নিয়ে আছে অনেক নিচে  ১১ নম্বরে।

ছবি: সৌ টুইটার।

Tags :

শেয়ার করুন


© R.P. Techvision India Pvt Ltd, All rights reserved.