skip to content
Monday, July 22, 2024

skip to content
Homeরাজ্যসরকারি জমিতেই পার্টি অফিস, উদাসীন প্রশাসন!
Illigal TMC Office

সরকারি জমিতেই পার্টি অফিস, উদাসীন প্রশাসন!

সরকারি জমি দখল করে গড়ে ওঠা তৃণমূল পার্টি অফিস নিয়ে জটিলতা

Follow Us :

কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের বাস্তবায়ন কোথায়? প্রশ্নটা উঠছে এই কারণেই, যে সরকারি জমি দখলমুক্ত করতে কড়া বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। সেখানে সরকারি জমি দখল করে গড়ে ওঠা তৃণমূল পার্টি অফিস বহাল তবিয়তে রয়েছে। একদিন, দু-দিন নয়, প্রশাসনের নাকের ডগায় শাসকদলের সেই কার্যালয় চলছে বছরের পর বছর ধরে (Illigal TMC Office)। বলা ভালো, সরকারি জমিতেই মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে রয়েছে স্থায়ীভাবে।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরেও কংক্রিটের সেই পোক্ত পার্টি অফিস ভাঙা তো দূরের কথা, উল্টে একতলার পার্টি অফিসের উপরেই আবার দোতলা করার তোড়জোড় শুরু হয়েছে জোরকদমে। তার জন্য কংক্রিটের পিলারও উঠে গিয়েছে ছাদে। ঘটনাটি কোনও গ্রামাঞ্চলের নয়, খাস কলকাতা লাগোয়া উত্তর ২৪ পরগনার শহরতলী বারাসতের (Barasat)।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরেও সরকারি জমিতে কীভাবে পার্টি অফিস এখনও বহাল তবিয়তে রয়েছে? পৌরসভা কিংবা প্রশাসন কেন তৃণমূলের পার্টি অফিস ভাঙতে কোনও উদ্যোগ নিচ্ছে না? তাহলে কি শাসকদলের কার্যালয় হওয়াতেই হাত গুটিয়ে বসে রয়েছে প্রশাসন? এমনই সব প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে স্থানীয় রাজনীতির অন্দরে। আর এই নিয়েই তৃণমূলকে কটাক্ষ করতে ছাড়ছে না বিরোধীরা। যদিও কার আমলে দলের এই কার্যালয়টি গড়ে উঠেছে তা নিয়ে দায় ঠেলাঠেলি শুরু হয়েছে বারাসাতে।

আরও পড়ুন: ভারতকে হিন্দুরাষ্ট্র বানানোর প্রচেষ্টা আটকানো গিয়েছে, দাবি অমর্ত্যের

বারাসাত পুরসভার (Barasat Municipality) ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অভিজিৎ নাথ চৌধুরী জানিয়েছেন, এই পার্টি অফিস সম্পর্কে বিশেষ কিছু তাঁর জানা নেই। যা হয়েছে আজ থেকে বারো বছর আগে সে সময় তিনি কাউন্সিলর ছিলেন না। যা জানেন তৎকালীন কাউন্সিলর এবং তৎকালীন পুর প্রধানরাই বলতে পারবেন বলেই দাবি তাঁর। তিনি বলেছেন, দল যা সিদ্ধান্ত নেবে তাই হবে। পার্টি অফিস ভাঙা নিয়ে সেভাবে কোনও মন্তব্য করেননি পুরপিতা।

এ বিষয়ে বারাসাত পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা তৃণমূল নেতা সুনীল মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, যে সময় এই পার্টি অফিস তৈরি হয়েছে সে সময় স্থানীয় মানুষজনেরা সেই এলাকাটা দখল করে নিচ্ছিল। তার পরবর্তী সময় সেখানে স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে তৈরি শুরু করে একাধিক দফতর তৈরি হয়েছে। তার পরবর্তী সময়ে এলাকার যুবকদের এই জমিটি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তা পরবর্তীতে পার্টি অফিসে পরিণত হয়েছে। পুরসভার সিদ্ধান্ত নিয়েই এই জমি তাদের হাতে দেওয়া হয়েছিল বলেই জানিয়েছেন সুনীল বাবু।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পর যদি পুরসভা বা প্রশাসন চায় সেই পার্টি অফিস ভেঙে দিতে তাহলে পার্টি অফিস ভেঙে দিক, এমনটাই মত প্রকাশ করেছে বারাসাত পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুনীল মুখোপাধ্যায়। স্থানীয় তৃণমূল-কংগ্রেসের (TMC) কর্মী সমর্থকদের দাবি এই পার্টি অফিসের জন্য তারা পুরসভায় অকপাই ট্যাক্স দেয়। তবে প্রশাসন যা সিদ্ধান্ত নেবে সেটাই তারা মেনে নেবে। বেআইনিভাবে কিছু করেনি তারা, এমনটাও দাবি তাদের। যখন বারাসাত শহরের ফুটপাত দখল মুক্ত করতে উদ্যোগী বারাসাত পুরসভা বা প্রশাসন সে জায়গায় দাঁড়িয়ে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয় ভেঙে আদৌ কি সরকারি জমি পুনরুদ্ধার করতে পারবে পুরসভা এ প্রশ্নই এখন উঠতে শুরু করেছে।

আরও খবর দেখুন

RELATED ARTICLES

Most Popular

Video thumbnail
Potato Price Hike | অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট! বাজারে আলু পাওয়া যাবে? বিরাট আপডেট
00:00
Video thumbnail
Budget 2024 Live Updates | তৃতীয় মোদি সরকারের প্রথম বাজেট, থাকছে কী কী বিষয়
00:00
Video thumbnail
Sheikh Hasina | Bangladesh Protests Update | নজরে নিরাপত্তা! জরুরি বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী হাসিনা
00:00
Video thumbnail
Mamata Banerjee | Bangladesh | বাংলার দরজায় বাংলাদেশ, কড়া নাড়লে কী করবেন মমতা?
00:00
Video thumbnail
Bangladesh Protests Live | সংরক্ষণ রায় খারিজ! বাংলাদেশে বিরাট আপডেট
00:00
Video thumbnail
BJP | JDU | বিরাট চাপে বিজেপি! সর্বদলীয় বৈঠকে এ কী চেয়ে বসল জেডিইউ?
00:00
Video thumbnail
Asansol News | Fake Lottery | ৯০ লক্ষ টাকার জাল লটারি বাজেয়াপ্ত, কোথায় দেখুন লাইভ
01:55:33
Video thumbnail
NDA | BJP | এনডিএতে ফাটল? সর্বদলীয় বৈঠকে এলেন না দুই শরিক নেতা
02:19:16
Video thumbnail
Kalna | TMC | ২১ জুলাইয়ের সভায় যাওয়াই কাল, তৃণমূল কর্মীকে 'মারধরের' অভিযোগ পরিবারের বিরুদ্ধে
01:45
Video thumbnail
Price Hike | কর্মবিরতির জেরে শুনশান হিমঘর, বাজারে আলুর ঘাটতির আশঙ্কা, বাড়তে পারে আলুর দাম
06:44