০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, বুধবার,
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
K T V Clock
গত বেশ কয়েক বছর ধরেই মাটির প্রদীপ তৈরি করেন যে মৃৎশিল্পীরা তাঁদের জীবিকা ক্রমশ বিপন্ন হয়েছে
চিনা টুনি বালব ছেড়ে ক্রেতারা ঝুঁকছেন মাটির প্রদীপে, সুদিনের আশায় মৃৎশিল্পীরা
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক Published By:  অর্ণব দত্ত
  • আপডেট সময় : ১৭-১০-২০২২, ৩:৪১ অপরাহ্ন

গত দু'বছর ধরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ম্লান করেছে উৎসবের আনন্দ। দুর্গাপুজো এবং কালীপুজোতেও গত দু'বছর জারি ছিল কঠোর কোভিড বিধিনিষেধ। চলতি বছরে করোনা পরিস্থিতি খানিক স্বাভাবিক হওয়ায় সদ্যসমাপ্ত দুর্গাপুজোর পরে আসন্ন কালীপুজোতেও মানুষ উৎসবের আনন্দে মেতে ওঠার প্রস্তুতিতে ব্যস্ত।

ঘরে ঘরে প্রদীপ জ্বালানো দীপাবলি উদযাপনের অন্যতম অঙ্গ হলেও পুরনো দিনের কথায় পর্যবসিত হয়েছে মাটির প্রদীপ। প্রায় অতীতের গর্ভে বিলীন হয়ে যা্ওয়া এক সামগ্রী মাটির প্রদীপ। প্রদীপকে নির্বাসিত করেছে বাজার ছেয়ে যাওয়া টুনি বালব। ফলে গত বেশ কয়েক বছর ধরেই মাটির প্রদীপ তৈরি করেন যে মৃৎশিল্পীরা তাঁদের জীবিকা ক্রমশ বিপন্ন হয়েছে। আর হু-হু করে কমেছে মাটির প্রদীপের ক্রেতার সংখ্যা।

বাপ-পিতামহের পেশা রক্ষা করতে তবু মৃৎশিল্পীদের একাংশ মাটির প্রদীপ তৈরির কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু ক্রেতাদের তেমন চাহিদা না থাকায় আর্থিক ক্ষতি লেগেই ছিল।
এবছর দীপাবলির আগে মৃৎশিল্পীদের মধ্যে খানিক আশার সঞ্চার হয়েছে ক্রেতাদের একাংশের কাছে মাটির প্রদীপের চাহিদা কিছুটা হলেও বাড়াতে। শিলিগুড়ির মধ্য চয়নপাড়ায় বসবাস করেন কয়েকঘর মৃৎশিল্পী। ওঁরা জানালেন, মাটির প্রদীপের দিকে ফের ঝুঁকছেন ক্রেতারা। যাঁরা চিনা টুনি বালব জ্বালিয়ে এতদিন দীপাবলি উদযাপন করেছেন তাঁরাও ফের ঐতিহ্যমুখী হওয়ায় প্রদীপের চাহিদা খানিকটা বেড়েছে। সেইসঙ্গে বাজারে চাহিদা বাড়ছে মাটির পঞ্চপ্রদীপেরও।

আরও পড়ুন: Manish sisodia at CBI Office: সিবিআই দফতরে সিসোদিয়া, জেলের তালা ভাঙবে, দাবি কেজরিওয়ালের 

একই কথা জানালেন উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের চালতাবেড়িয়ার মৃৎশিল্পীরাও। দেবদেবীর মূর্তি ইস্তক ওঁরা মাটি দিয়ে নানান ধরনের সামগ্রী তৈরি করেন। ওঁদের কথায়, 'এবছর মাটির প্রদীপের চাহিদা বেড়েছে। হয়তো ফের সুদিন ফিরবে এই আশাতেই আছি'।

Tags : diwali mud lamp demand increase before kali puja

0     0
Please login to post your views on this article.LoginRegister as a New User

শেয়ার করুন


© R.P. Techvision India Pvt Ltd, All rights reserved.