Placeholder canvas
HomeScrollযানজট রুখতে অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদের প্রতিবাদ বিক্ষোভ আইএনটিটিইউসি

যানজট রুখতে অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদের প্রতিবাদ বিক্ষোভ আইএনটিটিইউসি

জেলাসাশক ও রেজিস্ট্রি অফিসের চিঠি দেওয়া হয়েছে

Follow Us :

পুরুলিয়া: যানজট রুখতে (Prevent Traffic Jams) শহরের একাধিক রাস্তা থেকে অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদের প্রতিবাদে বিক্ষোভ আইএনটিটিইউসির (INTTUC protest)। পুরুলিয়া পুরসভার অধীনে থাকা শহরের প্রায় সব রাস্তায় হকারের দখলে চলে গিয়েছে। সেই রাস্তা থেকে দখল মুক্ত করতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে পুরুলিয়া পুরসভা (Purulia Municipality)। বেশ কিছুদিন আগেই শহরের জেলা শাসকের দফতরের পাশেই জেলা আদালত ও রেজিস্ট্রি অফিস পুরোপুরি দখলে চলে গিয়েছে। জেলা আদালতের পক্ষ থেকেও পুরসভাকে চিঠি দিয়ে এই দখল মুক্ত করার কথা জানায়। সেই মতো গত ৩দিন আগে পুরসভার পক্ষ থেকে ওই এলাকায় অস্থায়ী ভাবে থাকা দোকানদারদের জানিয়ে দেওয়া হয়। তারই প্রতিবাদে শহর আইএনটিটিউ র সভাপতি ও প্রাক্তন পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডের সদস্য কাজল ব্যানার্জির নেতৃত্বে বিক্ষোভ দেখানো হয়।
পুরপ্রধান পুরসভায় এলে সেখানেই তিনি বিষয়টি নিয়ে ব্যখ্যা করেন। তিনি জানান, জেলা আদলত থেকে জেলাসাশক ও রেজিস্ট্রি অফিসের চিঠি দেওয়া হয়েছে। তারপর প্রতিবাদে আসা নেতৃত্ব ও বেশ কয়েকজন দোকানদারা দফতরে দেখা করে তাদের দাবি জানান। পুরসভার পক্ষ থেকে পুরপ্রধান সহ বেশ কয়েকজন কাউন্সিলার উপস্থিত ছিলেন। যদিও পুরপ্রধান কোনও আস্বাস দেননি। তিনি বলেন, তাদের দাবি লিখিত আকারে জমা দিতে বলা হয়েছে। সেই তথ্য জেলা প্রশাসনকে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। প্রসাশন যা সিদ্ধান্ত নেবে সেটাই হবে। এনটিটিইউসির এই ভূমিকায় ক্ষুব্ধ। পুরসভাকে না জানিয়ে এইভাবে বিক্ষোভ দেখানো মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশকে অমান্য করা হয়েছে।
কালীপুজোর আগে থেকেই শহরের যানজট রুখতেএকাধিক কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করে পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে ফুটপাথ দখল মুক্ত করার ব্যাপারে অভিযান শুরু হয়। পাশাপাশি, পুরুলিয়া বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকাতেই অটো স্ট্যান্ড হওয়ার কারণে যাত্রীদের চাপে যানজটের সৃষ্টি হয়। সেই কারণেই অন্যত্র অটো স্ট্যান্ড সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়।

 

আরও অন্য খবর দেখুন

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments