৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার,
1
2
3
4
5
6
7
8
9
10
11
12
K T V Clock
তৃণমূল বাস শ্রমিক সংগঠনের কর্মবিরতি ছড়াচ্ছে দক্ষিণবঙ্গে, আজ মীমাংসা বৈঠকে পরিবহণমন্ত্রী
INTTUC Agitation: তৃণমূল বাস শ্রমিক সংগঠনের কর্মবিরতি ছড়াচ্ছে দক্ষিণবঙ্গে, আজ মীমাংসা বৈঠকে পরিবহণমন্ত্রী
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক
কলকাতা টিভি ওয়েব ডেস্ক Edited By: 
  • আপডেট সময় : ২২-০৯-২০২২, ১:২৫ অপরাহ্ন
INTTUC Agitation: তৃণমূল বাস শ্রমিক সংগঠনের কর্মবিরতি ছড়াচ্ছে দক্ষিণবঙ্গে, আজ মীমাংসা বৈঠকে পরিবহণমন্ত্রী
চরম দুর্ভোগে যাত্রীরা

দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার ঠিকাকর্মীদের বিক্ষোভের জেরে আজ, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বন্ধ হয়ে গেল বর্ধমান ও পুরুলিয়া ডিপোর কাজকর্ম। বর্ধমান ডিপোর দরজার সামনে বসে সকাল থেকেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন অস্থায়ী চালক ও কন্ডাক্টররা। একদিকে কুর্মি সমাজের অবরোধের জেরে গত তিনদিন ধরে রেল পরিষেবা সম্পূর্ণ বন্ধ। ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন পুরুলিয়ার যাত্রীরা।

গত মঙ্গলবার থেকে দিঘা ডিপো থেকে যে আন্দোলনের সূত্রপাত, তা বুধবার পর্যন্ত একাধিক ডিপোতে ও টার্মিনাসে ছড়িয়ে পড়ার ফলে সরকারি বাস চলাচল পরিষেবা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হয়েছে। এদিন সকাল থেকে বর্ধমান ডিপোতে এই অচলাবস্থা শুরু হওয়ার ফলে দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার পরিষেবা প্রায় পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেল।

আরও পড়ুন: Kurmi Agitation: আড়াই দিন কাটলেও অনড় কুরমিরা, রেল-সড়ক অবরোধে জেরবার জনজীবন

ইতিমধ্যে রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী বিষয়টি সহানুভূতির সঙ্গে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন কর্মচারীদের। আজ দুপুর তিনটের সময় কলকাতায় পরিবহণ দফতরে কর্মচারী প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছেন মন্ত্রী। এই বৈঠকের মাধ্যমে আলোচনার ভিত্তিতে সমাধানের পথ মিলবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। পরিবহণ মন্ত্রী আন্দোলনরত কর্মচারীদের কাছে আবেদন জানিয়েছেন, সমস্যা থাকলে আলোচনার মাধ্যমে তার সমাধানের পথ খোঁজা উচিত। কিন্তু কোনওভাবেই কাজ বন্ধ করে দিয়ে সাধারণ মানুষকে হয়রানির মধ্যে ফেলে দেওয়া উচিত নয়।

বুধবারের মতো বৃহস্পতিবারেও সরকারি বাস ডিপো এসবিএসটিসির মেদিনীপুর ডিপোর সমস্ত সরকারি বাস বন্ধ। এদিন সকাল থেকে কর্মীরা ডিপোর বাস বেরনোর রাস্তার উপর অবস্থান আন্দোলনে বসে রয়েছেন। তাঁদের দাবি, সরকার বেতনের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত না-করা পর্যন্ত কোনও কাজ করবেন না। এর জেরে এসবিএসটিসির প্রধান এই ডিপো থেকে যেখানে ৫৫টির মতো বাস বের হয়, সকাল থেকে তার একটি মাত্র বের হয়েছে। কারণ চালক ও কন্ডাক্টর মিলে মাত্র চার জন স্থায়ী কর্মী ছিলেন। বাকি প্রায় ১২০ জন অস্থায়ী কর্মী আন্দোলনে।

অস্থায়ী কর্মীদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে যোগ দিয়েছেন পুরুলিয়া ডিপোর কর্মীরাও। ফলে, সকাল থেকে কোনও সরকারি বাস পথে নামেনি। পুরুলিয়া ডিপোর বাসের সংখ্যা ১২টি। গত দু মাস আগে এই ডিপো থেকে ৩০টি রুটে বাস চলাচল করত। ২ মাসে ১২টি পরিষেবায় নেমে এসেছে। এই ডিপোতে অস্থায়ী চালক ও কন্ডাক্টর ৮৪ জন।

Tags : SBSTC Agitation দক্ষিণবঙ্গ পরিবহণ Transport Minister Snehasish Chakrabarty পরিবহণমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী INTTUC NBSTC WBTC Digha দিঘা Burdwan বর্ধমান Purulia পুরুলিয়া

0     0
Please login to post your views on this article.LoginRegister as a New User

শেয়ার করুন


© R.P. Techvision India Pvt Ltd, All rights reserved.