Placeholder canvas

Placeholder canvas
HomeScrollপাঁচ ঘন্টা বাপ্পাদিত্য ও সাত ঘণ্টা দেবরাজের বাড়িতে সিবিআই অভিযান

পাঁচ ঘন্টা বাপ্পাদিত্য ও সাত ঘণ্টা দেবরাজের বাড়িতে সিবিআই অভিযান

দুই জনপ্রতিনিধিই জানালেন, তদন্তে সবরকম সহযোগিতা করেছি

Follow Us :

কলকাতা:  প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘন্টা তল্লাশি অভিযান ও জিজ্ঞাসাবাদ করার পর কলকাতা পুরসভার কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তর (Bappaditya Dasgupta) বাড়ি থেকে বের হল সিবিআই (CBI)। মোবাইল ফোন, ইনকাম ট্যাক্স রিটার্নস এর কাগজপত্র (তাঁর ও তাঁর পরিবারের) এবং কলকাতা পুরসভার একাধিক কন্ট্রাকচুয়াল ওয়ার্কারের বায়োডেটা বাজেয়াপ্ত করেছে সিবিআই। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বাপ্পাদিত্যর ব্যাংক সেটমেন্টের কপি । পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা নিয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ নিয়োগ দুর্নীতির বিষয়ে। সব রকম সহযোগিতা করেছেন এবং আগামীতে ডাকা হলে তিনি সহযোগিতা করবেন বলে জানালেন বাপ্পাদিত্য।

এদিকে সাত ঘন্টা তল্লাশি অভিযানের পর বিধাননগর পুরসভার কাউন্সিলর দেবরাজ চক্রবর্তীর (Debraj Chakraborty) বাড়ি থেকে বেরিয়ে গেলেন সিবিআই আধিকারিকরা। প্রথমে সকাল সাড়ে আটটা থেকে জ্যাংড়ার বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালানো হয়। জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে নাগেরবাজার শ্যামনগর এলাকার বালাজি আবাসনের অদিতি মুন্সির ষ্টুডিওতে এসে পৌঁছয় সিবিআই। দুটো পঁয়তাল্লিশ নাগাদ সিবিআই আধিকারিকরা বালাজি আবাসন থেকে তল্লাশি অভিযানের পর বেরিয়ে যায়। দুপুর ১টা নাগাদ দেবরাজের রাজারহাটের বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় সিবিআই। দেবরাজ বলেন, ওঁরা কিছু নথি চেয়েছিলেন। সবই দিয়েছি। তদন্তে সবরকম সহযোগিতা করেছি। সকাল আটটা নাগাদ সিবিআইয়ের একটি দল তাঁর বাড়ি যায়।  সার্চ ওয়ারেন্ট নিয়ে এসেছিল সিবিআই। ২০১৫ সাল থেকে বিধাননগর পুরসভার কাউন্সিলর দেবরাজ। ২০২১ সালে তৃণমূলের টিকিটে জয়ী হয় তাঁর স্ত্রী তথা গায়িকা অদিতি মুন্সী।

আরও পড়ুন: স্থায়ী উপাচার্য নিয়োগের আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতিকে চিঠি

আরও খবর দেখুন 

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments