Placeholder canvas

Placeholder canvas
HomeScrollপারিবারিক বিবাদে সালিশি গুরুদ্বারে, জরিমানা হাইকোর্টের

পারিবারিক বিবাদে সালিশি গুরুদ্বারে, জরিমানা হাইকোর্টের

সংগতকে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা দেওয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের

Follow Us :

কলকাতা: পুত্র ও পুত্রবধূর বিরোধে পরিবারকে সমাজ থেকে বহিষ্কার। আদালতে ভর্ৎসনা গুরুদ্বার ছোটা সিং সংগতকে (Gurdwara Chhota Singh Sangat)। পাশাপাশি সংগতকে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা দেওয়ার নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court)। আদালত জানায়, শুধু ধর্মীয় নিপীড়ন নয়, আবেদনকারীকে সামাজিক ক্ষেত্রে ও আত্মীয়-স্বজনের ওই বহিষ্কারের নির্দেশ ছোট করার সমান। তাঁর স্বাভাবিক জীবনে হস্তক্ষেপ করার পাশাপাশি সম্মান নিয়ে বেঁচে থাকার অধিকারে হাত দেওয়া হয়েছে। পুত্র ও পুত্রবধূর মধ্যে বিরোধে আবেদনকারীকে কোনও ভাবেই দায়ী করা যায় না। আদালতের প্রশ্ন বিরোধ যদি থেকেও থাকে, সেখানে গুরুদ্বার কিভাবে হস্তক্ষেপ করে? এমন পদক্ষেপ সংবিধানের মৌলিক অধিকার বিরোধী। অভিমত বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্যের।

আবেদনকারী অগ্রহারী শিখ সমাজের সদস্য। একইসঙ্গে গুরুদোয়ারা ছোটা সিং সংগতের সদস্য। পুত্র ও পুত্রবধূর বিরোধে গোটা অগ্রহারী শিখ সমাজ থেকে আবেদনকারীকে বহিষ্কার করা হয়। বিরোধের জেরে পুত্রবধু অসহায় অবস্থায়। তার ভাই গুরুদ্বারে অভিযোগ করেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতে আবেদনকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু তিনি সাড়া দেননি। অভিযোগ সংগতের।

আরও পড়ুন: শাহজাহানকে লুকিয়ে রেখেছে রাজ্য, অভিযোগ দিলীপের

এমন বিরোধের মীমাংসার জায়গা দেওয়ানী আদালত। পুত্র বা পুত্রবধূর বাবা মা এমন ক্ষেত্রে কিছু করতে পারেন না। ওই গুরুদ্বারেও এমন দায়িত্ব নিজের কাঁধে নিতে পারেনা। গুরুদ্বার সবাইকে ধর্মীয় দিকনির্দেশ করবে, নেতৃত্ব দেবে। কিন্তু এই বিষয়টির সঙ্গে ধর্মের কোন সম্পর্ক নেই। অভিমত সহ গুরুদোয়ারার বহিষ্কারের নির্দেশ খারিজ। যে তিনজন ওই নির্দেশ জারি করেছিলেন, তাঁরা প্রত্যেকে 50000 টাকা করে জরিমানা হিসেবে আবেদনকারীকে দেবেন। নির্দেশ আদালতের।

আরও অন্য খবর দেখুন

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments