skip to content
Thursday, June 13, 2024

skip to content
Homeরাজ্যওবিসি সার্টিফিকেট বাতিলের রায় মানি না, মানব না, মন্তব্য মমতার
Mamata Banerjee

ওবিসি সার্টিফিকেট বাতিলের রায় মানি না, মানব না, মন্তব্য মমতার

সুপ্রিম কোর্টে যাবে সরকার, বিজেপির রায় বলে কটাক্ষ মুখ্যমন্ত্রীর

Follow Us :

কলকাতা: ওবিসি সার্টিফিকেট (OBC Certificate) বাতিলের রায় রাজ্য সরকার মানবে না বলে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  (Mamata Banerjee) । বুধবার খড়দহ এবং পানিহাটিতে নির্বাচনী সভায় (Election meeting in Panihati) মমতা বলেন, চাকরি বাতিলের রায় মানিনি। হাইকোর্টের (Calcutta High Court) এই রায়ও মানব না, মানব না, মানব না। তিনি এদিনের রায়কে বিজেপির রায় বলেও কটাক্ষ করেন। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, রায়ের বিরুদ্ধে সরকার সুপ্রিম কোর্টে যাবে। বুধবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা এবং বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর ডিভিশন বেঞ্চ ২০১০ সালের পর তৃণমূল সরকারের দেওয়া সমস্ত ওবিসি সার্টিফিকেট অসাংবিধানিক এবং অবৈধ বলে ঘোষণা করেছে। এই নির্দেশের ফলে প্রায় পাঁচ লক্ষ ওবিসি সার্টিফিকেট বাতিল হয়ে গেল।

হাইকোর্টের ওই নির্দেশের খবর পেয়েই নির্বাচনী সভার মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী রেগে যান। তিনি বলেন, মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত হয়েছিল ওবিসি সার্টিফিকেট দেওয়ার। বিচার ব্যবস্থাকে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, বিজেপি তাকেও কিনে নিয়েছে। একজন বিচারপতি অবসর নিয়েই বলছেন, আমি বরাবরই আরএসএসের লোক। আর এক বিচারপতি তো স্বেচ্ছাবসর নিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: তৃণমূল সরকারের দেওয়া সমস্ত ওবিসি সার্টিফিকেট বাতিল

মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী আগুন নিয়ে খেলছেন। তিনি তফসিলি আদিবাসীদের সংরক্ষণ বাতিল করতে চান। তিনি আদিবাসীদের অধিকার কেড়ে নিতে চান। জীবন থাকতে তা হতে দেব না। বিচার ব্যবস্থাকে উদ্দেশ্য করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিজেপি সরকারের কোনও সিদ্দান্ত বাতিলের ক্ষমতা আছে আপনাদের?
এদিকে রাজ্যের বিরোধী দলগুলি আদালতের এই রায়ের জন্য তৃণমূল সরকারকেই দায়ী করেছে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, এর জন্য দায়ী মুখ্যমন্ত্রী নিজে। কোনও নিয়ম না মেনে সংশ্লিষ্ট কমিশনের পরামর্শ না নিয়ে বেআইনি কাজ করা হয়েছে। তাই আদালত তা বাতিল করেছে। বিজেপির রাজ্য মুখপাত্র এবং রাজ্যসভার সাংসদ শমীক ভট্টাচার্য বলেন, সংখ্যাগরিষ্ঠতার সুযোগ নিয়ে বিধানসভায় এই আইন পাশ করিয়েছিল সরকার।

অন্য খবর দেখুন

RELATED ARTICLES

Most Popular