skip to content
Thursday, June 13, 2024

skip to content
Homeরাজ্যদুশো আসনও পাবে না বিজেপি, বিষ্ণুপুরে দাবি মমতার
Mamata Banerjee

দুশো আসনও পাবে না বিজেপি, বিষ্ণুপুরে দাবি মমতার

ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘ, রামকৃষ্ণ মিশনের কিছু সাধু পলিটিক্স করছেন, অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

Follow Us :

কলকাতা: সোমবার দেশে পঞ্চম দফার ভোট। ইতিমধ্যে প্রায় তিনশো আসনে ভোট হয়ে গিয়েছে। বিজেপি দাবি করছে, চার দফার ভোটেই তারা দুশো আসন পেয়ে গিয়েছে। বিরোধী ইন্ডিয়া জোটের (India Alliance) পাল্টা দাবি, বিজেপি এবার আর ক্ষমতায় আসতে পারছে না। তাদের আসন দুশোও পার হবে না। এই অবস্থায় শনিবার বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে নির্বাচনী সভায় (Election Meeting) তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) জানিয়ে দিলেন, বিজেপি দুশো আসনও পাবে না। এমনকী কোন রাজ্যে বিজেপির কী অবস্থা হবে, তাও জানালেন তিনি। মমতা বলেন,  কর্নাটকে? ঘেঁচু। কেরলে? কাঁচকলা। তামিলনাড়ুতে? নো চান্স। উত্তর পূর্ব, হরিয়ানা, দিল্লিতে কিছুই পাবে না ওরা। রাজস্থানে ভোট কম পাবে। মধ্যপ্রদেশেও আগে যা পেয়েছিল, তার চেয়ে কম পাবে। পঞ্জাব, বিহার, ওড়িশা, বাংলাও ওরা পাবে না। অঙ্কটা পরিষ্কার।

এদিন বিষ্ণুপুরের প্রার্থী সুজাতা মণ্ডল (Bishnupur TMC Candidate Sujata Mandal) ও আরামবাগের প্রার্থী মিতালী বাগের (Arambagh Trinamool candidate Mithali Bagh) সমর্থনে জনসভা করেন মমতা। সভা থেকে  কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে এক হাত নিয়ে মমতা বলেন, নির্বাচনী বিধি ভঙ্গ করেছেন শাহ। তিনি এখানে এসে বলছেন, শেয়ার বাজারে বেশি বেশি টাকা বিনিয়োগ করতে। এটা উনি করতে পারেন না। এখন নির্বাচন চলছে। শুরু থেকে মমতার নিশানাতে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। মমতা বলেন, ঘুম থেকে উঠেই মিথ্যা কথা বলেন উনি। কেউ নেই ওদের সঙ্গে। বাঙালিরা মোদিবাবুদের পছন্দ করে না। অ্যাড দিয়ে হয় না। এটা মন দিয়ে, হৃদয় দিয়ে হয়।

আরও পড়ুন: ভাইরাল অডিও নিয়ে মুখ খুললেন দেব, নাম জড়াল রোজভ্যালি মামলাতেও

সন্দেশখালির (Sandeshkhali ) ঘটনাপ্রবাহে বিজেপিকে ফের কড়া আক্রমণ শানালেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর দাবি, বিজেপি ষড়যন্ত্র করে রাজ্যে সাম্প্রদায়িক হিংসা ছড়ানোর পরিকল্পনা করছে। তিনি বলেন, সন্দেশখালি নিয়ে বিজেপি সাম্প্রদায়িক হিংসার রাজনীতি করতে পারে। আমি প্রশাসনকে রাজ্য জুড়ে নজর রাখতে বলব। সন্দেশখালি ব্যর্থ হওয়ার পরে বিজেপির এটাই প্ল্যান। মন্দিরে মন্দিরে গিয়ে দেবতাদের মূর্তি সরিয়ে দিয়ে  হিন্দু-মুসলমান করা। এটা করতে দেবেন না। কোনও জায়গায় যেন না হয়।  

এদিন নজিরবিহীনভাবে মুখ্যমন্ত্রী ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘ এবং রামকৃষ্ণ মিশনের সন্ন্যাসীদের একাংশের বিরুদ্ধেও রাজনীতি করার অভিযোগ আনেন। তিনি বলেন, মহারাজদের একাংশ ডিরেক্ট পলিটিক্স করে দেশের সর্বনাশ করছে। আরামবাগের সভায় তিনি বলেন, আমি আইডেন্টিফাই করেছি বলেই বলছি। বিজেপির পক্ষে ভোট দিতে বলার জন্য দিল্লি থেকে সাধু-সন্তদের কাছে নির্দেশ আসছে। অন্যরা কাকে ভোট দেবেন, সেটা সাধু-সন্তদের দিয়ে বলানো হবে কেন, প্রশ্ন তোলেন মমতা।

দেখুন ভিডিও

 

RELATED ARTICLES

Most Popular