Placeholder canvas
HomeScrollগান আর অভাব চিরসঙ্গী, লাল মাটির বুকে এখনও হেঁটে বেড়ান সুরসাধক রতন

গান আর অভাব চিরসঙ্গী, লাল মাটির বুকে এখনও হেঁটে বেড়ান সুরসাধক রতন

Follow Us :

বীরভূম: এত গান লিখেও সংসার চলছে না। এক সময় আক্ষেপ করেছিলেন বীরভূমের লোকশিল্পী রতন কাহার। এবার সেই প্রকৃতযশা লোকশিল্পী গায়ক পেতে চলেছেন পদ্মশ্রী পুরস্কার। বড়লোকের বিটি লো গানের স্রষ্টার এই সম্মানে খুব স্বাভাবিকভাবে খুশি বীরভূমবাসী।

ভাদু গান গেয়ে যৌবনকালে গায়কজীবন শুরু করেছিলেন রতন। পরে শুরু করেন গান বাঁধতে। জেলায় জেলায় ঘুরে গান শুনিয়েছেন। প্রসার ভারতীতেও গেয়েছেন। কিন্তু নিয়মিত সুযোগ পাননি সেখানেও। বড়লোকের বিটি লো, লম্বা লম্বা চুল। এই গানটি অনেকেরই পরিচিত। গানটির রচয়িতা রতন কাহার। ১৯৭২ সালে তিনি এই গানটি লিখেছিলেন এবং এই গানটি প্রথম গেয়েছিলেন স্বপ্না চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন: মুম্বইয়ের রেস্তরাঁয় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, মৃত ১

লাল মাটির বুকে এখনও পথ হেঁটে বেড়ান পাগল সুরসাধক। রতন কাহারও বৃদ্ধ হয়েছেন। অশক্ত শরীর তাও গান নিয়ে আজও বাঁচেন। নিজের গান এত বিখ্যাত হলে কী হবে, অবস্থা তাঁর বদলায়নি আজও। গান আর অভাব তাঁর চিরসঙ্গী। জীবনে রয়েছে অনেক অসুবিধা, অনেক প্রতিকূলতা। একের পর এক লোকসঙ্গীতের ধারাকে সমৃদ্ধ করে গিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে জুড়ে একজন সাধক, যাঁর সারা শরীর জুড়ে কেবল মাটিরই গন্ধ। ‘মাটির একতারা’। সম্মান যে পাননি, তা নয়। ছোট্ট বড় মিলিয়ে অনেক পুরস্কার। পূর্বাঞ্চল সংস্কৃতি কেন্দ্র, তথ্য সংস্কৃতি বিভাগ সহ বিভিন্ন পুরস্কার রয়েছে তাঁর ঝুলিতে।লোকসঙ্গীতের মানুষ ও তার বাইরের গুটিকয়েকজন ছাড়া বৃহত্তর অংশের ধরাছোঁয়ার বাইরে তিনি।

দেখুন আরও অন্যান্য খবর: 

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments