Placeholder canvas
HomeBig newsআমি ফিরে আসব, বিধানসভায় দাবি হেমন্তর
Jharkhand Assembly Floor Test Updates

আমি ফিরে আসব, বিধানসভায় দাবি হেমন্তর

রাজভবনের হাত আছে, অভিযোগ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর

Follow Us :

রাঁচি: ইডি-র হাতে তাঁর গ্রেফতারিতে রাজভবনের হাত আছে— সোমবার ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় আস্থাভোটের ভাষণে সরাসরি এই অভিযোগ তোলেন সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা জেএমএমের সর্বময় নেতা হেমন্ত সোরেন। এদিন নতুন মুখ্যমন্ত্রী চম্পাই সোরেনের বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের দিন ছিল। ইডির হেফাজতে থাকা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বেলা ১১টা নাগাদ বিধানসভায় নিরাপত্তার মধ্যে হাজির হন।

৪৭ জন সদস্যের সমর্থনে মুখ্যমন্ত্রী চম্পাই সোরেন এদিন সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করার আগে আস্থা বিতর্কের উপরে ভাষণে বিজেপিকে তুলোধনা করেন হেমন্ত সোরেন। ভোটাভুটির শেষে বিজেপির জোট শরিক আজসুর সভাপতি সুদেশ মাহাত বলেন, সংখ্যার বিচারে ওরা জিতলেও দুর্নীতির মূল প্রশ্নের কোনও জবাব দিতে পারেননি মুখ্যমন্ত্রী। কেন এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হল সরকারের কাছে এই প্রশ্নের কোনও উত্তর ছিল না।

আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডে জেএমএম দুর্গ অটুট চম্পাইয়ের নেতৃত্বে

কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ আস্থা ভোটের পর বলেন, রাজ্যপাল সিপি রাধাকৃষ্ণন পক্ষপাতদুষ্ট। তামিলনাড়ু, কেরল, মণিপুর, জম্মু-কাশ্মীর, ঝাড়খণ্ড, বিহার যেদিকে তাকানো যাবে, দেখা যাবে রাজ্যপালরা একপেশে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এবং প্রধানমন্ত্রীর দফতর যা চাইবে তাই চলছে। কংগ্রেস সাংসদ রাজীব শুক্লা বলেন, নির্বাচিত সরকার ফেলে দেওয়ার চক্রান্ত ব্যর্থ হয়েছে। চম্পাই সোরেন সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছেন।

আস্থা বিতর্কে অংশ নিয়ে হেমন্ত বলেন, আমি আজ চোখের জল ফেলব না। সময়ের জন্য চোখের জল মজুত করে রাখব। আপনাদের জন্য চোখের জলের কোনও অর্থ নেই। বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ করে তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে যদি দুর্নীতির অভিযোগ আপনারা প্রমাণ করতে পারেন, আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব। কথা দিচ্ছি, রাজ্য ছেড়ে দেব।

৩১ জানুয়ারি গণতন্ত্রের পক্ষে কালাদিবস বলে উল্লেখ করে হেমন্ত আরও বলেন, রাজভবনের উৎসাহ-উদ্যোগে একজন মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতার করা হতে পারে, এমন কখনও হয়নি। বিজেপি চায় না কোনও আদিবাসী ঝাড়খণ্ডে ৫ বছর মুখ্যমন্ত্রী পদে টিকে থাকুক। ওরা ওদের জমানাতেও তা হতে দেয়নি, অভিযোগ তাঁর।

তবে আজ কাঁদব না, সঠিক সময়ে সামন্ততান্ত্রিক শক্তির বিরুদ্ধে যোগ্য জবাব দেব একদিন। আদিবাসীদের উপর অত্যাচারে তারা তাদের ধর্ম ছাড়তে বাধ্য হয়, যেমন বিআর আম্বেদকর বৌদ্ধ হয়েছিলেন। আজকের দিনেও আদিবাসীদের অচ্ছ্যুৎ বলে ভাবে বিজেপি, অভিযোগ হেমন্তর। দেশে বিজেপি সরকারের আমলে আদিবাসী এবং দলিতরা নিরাপদ নয়। তিনি দাবি করেন, আমি আবার ফিরে আসব, পুরো শক্তি নিয়ে ফিরব। বিরোধীদের চক্রান্ত ব্যর্থ হবেই।

অন্য খবর দেখুন

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments