Placeholder canvas

Placeholder canvas
HomeBig newsরামমন্দিরের পর কামাখ্যা করিডর মোদির ভোটের তাস

রামমন্দিরের পর কামাখ্যা করিডর মোদির ভোটের তাস

কাশী বিশ্বনাথ, উজ্জয়িনীর মহাকাল করিডরের পর তৃতীয় বৃহত্তম

Follow Us :

গুয়াহাটি: রামমন্দির তাসের পর উত্তর-পূর্ব ভারতের মন জয় এবং হিন্দুত্বের আস্তিনে লুকিয়ে রাখা আরও একটি তাস খেললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রবিবার অসমে প্রাচীন শক্তিপীঠ কামাখ্যা মন্দির করিডরের শিলান্যাস করেন মোদি। ৪৯৮ কোটি টাকা ব্যয়ে তৈরি এটাই হবে দেশের তৃতীয় বৃহত্তম মন্দির করিডর। প্রথমে রয়েছে কাশী বিশ্বনাথ এবং উজ্জয়িনীর মহাকাল করিডর।

এছাড়াও এদিন প্রধানমন্ত্রী দুদিনের অসম সফরে ডাবল ইঞ্জিন সরকারের লোকসভা ভোটের প্রচার-শো সেরে ফেললেন। রবিবার গুয়াহাটির ভেটেরিনারি কলেজ মাঠে এক বিরাট জনসভার আগে বিশাল রোড শো করেন প্রধানমন্ত্রী। জনসভায় যথারীতি বিজেপি সরকারের বিকশিত বিকাশকে তুলে ধরার পাশাপাশি আত্মপ্রচারেও জনতাকে সম্মোহিত করলেন। একইসঙ্গে কংগ্রেসের নাম না করে উত্তর-পূর্ব ভারতকে যুগ যুগ ধরে পিছিয়ে রাখার কঠোর সমালোচনা করেন।

আরও পড়ুন: মোদিকে ‘নরেন্দ্র-কৃষ্ণ’ বলে আখ্যা রাজ্যপাল বোসের

এদিন প্রধানমন্ত্রী লোকসভা ভোটকে পাখির চোখ করে অসমের জন্য ১১ হাজার ৬০০ কোটি টাকার প্রকল্পের সূচনা করেন। ভাষণে তিনি বলেন, ডাবল ইঞ্জিন সরকারের সুফল হল, এতে বিকাশ এবং ঐতিহ্যের উন্নয়ন সহজ হয়। এইসব প্রকল্প শুধু অসমকে নয়, গোটা উত্তর-পূর্ব ভারতের উন্নয়নের দরজা খুলে দেবে। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি, পর্যটন ক্ষেত্রে চাকরি ও কর্মসংস্থান, শিক্ষা এবং স্বাস্থ্যখাতে ব্যাপক উন্নয়ন আসবে।

ভাষণের শুরুতেই মোদি বলেন, আমি আজ মা কামাখ্যার দরজায় এসেছি। পৃথিবী ঘোরার পর মায়ের কাছে এসেছি। আমি কথা দিচ্ছি, কিছুদিনের মধ্যেই কামাখ্যা মন্দির করিডর উত্তর-পূর্ব ভারতের পর্যটনের ‘প্রবেশদ্বার’ হয়ে যাবে। ভারতের হাজার হাজার বছরে অটুট বিশ্বাসের স্থল হল কামাখ্যা মন্দির।

কংগ্রেসের নাম না করে মোদি বলেন, এর আগে যারা ক্ষমতায় ছিল তারা কোনওদিন এখানকার গর্ব, ঐতিহ্য, সংস্কৃতিকে গুরুত্ব দেয়নি। কাশী করিডর নির্মাণের পর ৮ কোটি ভক্ত কাশী বিশ্বনাথ দর্শন করেছেন। ১২ দিনে অযোধ্যায় ২৪ লক্ষ রামভক্ত রামলালার দর্শন করেছেন। সে রকম কামাখ্যা মন্দির করিডর তৈরি হয়ে গেলে অসমেও এরকম পর্যটকদের ভিড় হবে।

এছাড়া, মোদি সরকারের গ্যারান্টির গলায় বিজয়মালা পরিয়ে অন্তর্বর্তী বাজেটে তাঁর সরকার কী কী দিয়েছে তার খতিয়ান তুলে ধরেন। উত্তর-পূর্ব ভারতে হিংসা, জঙ্গি কার্যকলাপের জন্যও কংগ্রেসকে দায়ী করলেও একবারের মণিপুরের নামোল্লেখ করেননি তিনি।

অন্য খবর দেখুন

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments